একটি ওয়েবসাইট থেকে ইনকাম করুন আজীবন

একটি ওয়েবসাইট থাকলেই কি টাকা ইনকাম করা যাবে? হ্যাঁ, আপনি একটি ওয়েবসাইট দিয়ে মাস মাস লাখ লাখ টাকা ইনকাম করতে পারেন।

ধরুন, আপনি কবিতা বা গল্প লেখালেখি করতে পছন্দ করেন। নিয়মিত আপনার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করছেন, আপনার অনেক শুভাকাঙ্ক্ষী আপনাকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছে, আপনার লেখনীর প্রশংসা করতেছে।

আপনি যে কবিতা বা গল্প ফেসবুক বা অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করছেন- সেই একই লেখা আপনার একটি ওয়েবসাইটে দেওয়ার পর আপনার ফেসবুক টাইমলাইন বা বিভিন্ন গ্রুপে দিবেন। পাঠকরা পড়বে ফেসবুক কিংবা গুগল এডসেন্স থেকে পাশাপাশি আপনি একটা ভালোমানের টাকা পাবেন।

আপনার ওয়েবসাইটে পাঠকপ্রিয় কন্টেন্ট দিলে একদিকে যেমন আপনার ওয়েবসাইটির পরিচিতি বাড়বে, তেমনি আপনি কিছু সময় ব্যয় করে টাকা ইনকাম করতে পারেন।

কথায় আছে ” Time is money” । তাই আমি বলবো – Don’t waste your time. বসে না থেকে আপনার একটি ওয়েবসাইটের পিছনে সময় দিন।

► অনলাইন নিউজ পোর্টাল
► ব্যক্তিগত ব্লগসাইট
► ফটোগ্রাফি ওয়েবসাইট

এছাড়াও অনেক ধরনের ওয়েবসাইট আছে। যেকোন একটি বিষয় নিয়ে আপনার যাত্রা শুরু করুন একটি ওয়েবসাইট দিয়েন। ইনশাল্লাহ পরিশ্রম দিন, সফল হবেন।

এবার আসি, একটি ওয়েবসাইটের চালানোর জন্য কি কি প্রয়োজন হবে-

১) আপনার একটি স্মার্টফোন বা ল্যাপটপ।
২) ইন্টারনেট সুবিধা।
৩) একটি ডোমেন
৪) হোস্টিং।
৫) ওয়েবপৃষ্ঠা ডিজাইন

ডোমেন কি?

সবাই চান, তার নামের সাথে যেন অন্যকারো নামের সাথে মিলে না যায়। ছোট ও সহজ করে বললে ডোমেন হচ্ছে- যে নামের মাধ্যমে আপনার ওয়েবসাইট লোকজন খুঁজে পাবে সেটাই হলো ডোমেইন।

আরেকটু বোঝার সুবিধার্থে – ওয়েবসাইট করতে হলে আপনাকে আপনার ওয়েবসাইটের একটি নাম দিতে হবে। আর ওয়েবসাইটের সেই নামকেই বলা হয় ডোমেইন। উদাহরণ হিসেবে বলতে পারি- আমরা ফেইসবুক কে খুঁজে পাই www.facebook.com দিয়ে। গুগল কে অমারা খুঁজে পাই www.google.com দিয়ে।

ডোমেইন এক্সটেনশন শুধুমাত্র .com দিয়েই হবে সেরকম নয়, বিভিন্ন ধরনের ওয়েবসাইটে বিভিন্ন ধরনের ডোমেইন এক্সটেনশন (.net , .xyz ) লোকজন ব্যবহার করে। ব্যবসা বা সাধারণ ব্যবহারের জন্য সবাই .com ই ব্যবহার করে।

আপনার ওয়েবসাইটের জন্য আপনাকে প্রথমে একটি নাম পছন্দ করতে হবে । শুধু আপনার পছন্দ হলে হবে, আপনার পছন্দের নাম দিয়ে অনেক আগেই যদি অন্যকেউ নিবন্ধন করে ফেলে ডোমেনটি, তাহলে আপনি সেই নামে আর নিবন্ধন / কিনতে করতে পারবেন না ।

হোস্টিং কি

আপনি একটি ডোমেইন কিনলেন / নিবন্ধন করেন, তাহলে আপনি আপনার ওয়েবসাইটের একটি নাম কিনলেন।

এবার আপনার ওয়েবসাইটকে এমন একটা পিসি বা তে রাখতে হবে যেটা ২৪ ঘন্টা এবং বছরে ৩৬৫ দিন অন থাকবে। সবসময় চালু থাকে এমন একটা পিসিতে আপনার ওয়েবসাইট রাখার সুবিধা দিয়ে থাকে হোস্টিং কোম্পানীগুলো।

ওয়েব হোস্ট একটি বড় কম্পিউটার (ওরফে, সার্ভার) যা আপনার ওয়েবসাইটগুলি সঞ্চয় করে। কয়েকটি দৈত্য সংস্থা – যেমন অ্যামাজন, আইবিএম, এবং এফবি তাদের ওয়েব সার্ভারগুলির মালিক এবং পরিচালনা করে; অন্যান্য ব্যবসায়গুলি কেবল তাদের হোস্টিং সরবরাহকারীর কাছ থেকে সার্ভারগুলি ভাড়া দেয় (যা অনেক বেশি সস্তা এবং সহজ)।

কোথা থেকে হোস্টিং কিনবেন?

আমাদের দেশেই এখন শত শত আইটি কোম্পানি আছে যারা হোস্টিং প্রোভাইডে আপনাকে সহযোগিতা করবে। আপনি চাইলে দেশের কোম্পানিগুলো থেকে নিতে পারেন বা বাহিরের দেশ থেকেও কিনতে / নিবন্ধন করতে পারেন।

কিভাবে ওয়েবপৃষ্ঠা ডিজাইন করবেন?

ওয়েবপৃষ্ঠা ডিজাইন হচ্ছে আপনার ওয়েবসাইটি দেখতে কেমন হবে। আপনার ওয়েবসাইটি যত আকর্ষণীয় করে তুলবেন, পাঠকপ্রিয়তা পাবে খুব দ্রুত। সেই সাথে আপনি ফেসবুক ও গুগল দিয়ে টাকা ইনকাম শুরু করতে পারেন । ওয়েবপৃষ্ঠা ডিজাইন আপনি নিজেও করতে পারবেন বা আপনি চাইলে ওয়েবপৃষ্ঠা ডিজাইন এক্সপার্ট দিয়ে করে নিতে পারেন ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares